মোবাইল ফোন হারিয়ে গেলে করনীয় কি? দ্রুত জেনে নিন।

মোবাইল ফোন হারিয়ে গেলে করনীয় কি? কি করলে নিরাপদ থাকবে আপনার মোবাইল ফোন এসব বিষয়ে জানতে সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি পড়ার অনুরোধ রইল। 

মোবাইল ফোন হারিয়ে গেলে করনীয় 

আপনার মোবাইল ফোনটি যদি হারিয়ে যায় তাহলে দ্রুত আপনার ফোনের সিমের কানেকশন ডিএক্টিভ করে দিন। তা না হলে বিকাশ একাউন্ট, ব্যাংক একাউন্ট রয়েছে সে সমস্ত সকল অ্যাকাউন্টের টাকা মুহূর্তের মধ্যেই ভ্যানিশ হয়ে যাবে। এরকম সমস্যায় আমাদের ভিতরে অনেকেই পড়েছেন। বর্তমানে আমারা ব্যাংকে না গিয়ে মোবাইল ব্যাংকিং এর মাধ্যমে সকল কাজকর্ম করছি। আপনার হাতে থাকা মোবাইল ফোনটির মাধ্যমে মুহূর্তের মধ্যেই লক্ষ লক্ষ টাকা ট্রানজেকশন করছেন। 

কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত আপনার মোবাইলটি হারিয়ে যেতে পারে অথবা চুরি হয়ে যেতে পারে। এখন আপনার মোবাইলটা যদি হারিয়ে যায় আর আপনার ফোনে কল যাচ্ছে তাহলে কেউ রিসিভ করবে সে অপেক্ষা না করে দ্রুত আপনার মোবাইলে থাকা সিম ডিএক্টিভ করুন। তাছাড়াও আরো কয়েকটি কাজ রয়েছে সেগুলো আজকের পোস্টে বিস্তারিত আলোচনা করব। এখন আমরা অনেকেই মনে করতে পারি মোবাইলে কল ঢুকলে সিমটি কেন ডিএক্টিভ করব। কারণ আমার মোবাইলটি অন্য কেউ কুড়িয়ে পেয়েছি অথবা সে আমাকে ফেরত দিতে চাই। এখন কথা হচ্ছে সে ফোনটি ফেরত দিতে ও পারে অথবা নাও দিতে পারে। 

 

কেন ফোনের সিম ডিএক্টিভ করবেন 

বর্তমান সময়ে স্মার্টফোন যদি কোথাও পড়ে থাকে তাহলে সেটি কুড়িয়ে নিয়ে ফেরত দেওয়ার মন মন মানসিকতা মানুষ খুবই কম থাকে। এখন কোন সময় আপনার ফোনটি যদি হারিয়ে যায় অথবা চুরি হয়ে যায়। তাহলে ফোনটি ফেরত পাওয়ার আশা না করে সাথে সাথে আপনার মোবাইলে থাকা সিম টি ডিএক্টিভ করুন। এটি যদি আপনি না করেন তাহলে প্রতারক আপনার মোবাইলে সিমের মধ্যে ওটিপি এনে আপনার মোবাইল ব্যাংকিং, ইন্টারনেট ব্যাংকিং সহ আপনার অ্যাকাউন্ট হ্যাক করে নিতে পারে। তাই সর্বপ্রথম আপনার মোবাইলটি যদি হারিয়ে যায় অথবা চুরি হয়ে যায় তাহলে সাথে সাথেই সিম ডিএক্টিভ করে দিন। 

 

ফোন ডিএক্টিভ করার নিয়ম

আপনার সিমে যদি মোবাইল ব্যাংকিং অথবা ব্যাংক যুক্ত থাকে তাহলে সেম ডিএক্টিভ করে দিতে পারেন। আর যদি একাউন্ট না থাকে তাহলে অপেক্ষা করতে পারেন। এখন আপনি চাইলে আপনার হাতে থাকা মোবাইল ফোনটির মাধ্যমে সিম ডিএক্টিভ করতে পারবেন। সাধারণত, আপনার সিমটি হারিয়ে গেছে এখন আপনার আত্মীয় অথবা ফ্রেন্ডের মোবাইল ফোন থেকে আপনার সিম ডিএক্টিভ করতে পারবেন। আমরা My GP অ্যাপের মাধ্যমে গ্রামীনফোন সিম ডিএক্টিভ করে দেখাবো। আপনি চাইলে একই নিয়ম অনুসরণ করে অন্যান্য আপারেটর এর সিম গুলোও ডিএক্টিভ করতে পারবেন।

আরোও পড়ুন: আনঅফিসিয়াল মোবাইল ফোন চেক করার উপায়

প্রথমে আপনার মোবাইল ফোনে ডাটা সংযোগ চালু করুন। তারপরে মোবাইল থেকে Play Store গিয়ে সার্চ অপশনে My GP লিখে সার্চ করুন। এখন my GP অ্যাপটি install করুন। কয়েক মিনিটের ভিতরে অ্যাপটি সম্পূর্ণভাবে install হওয়ার পরে অ্যাপটিতে প্রবেশ করুন। এখন নিচে অনেকগুলো অপশন দেখতে পাবেন। যেমন:

  • Home 
  • Others 
  • Explore 
  • Service 
  • Account 

এখন আপনি Service অপশনে ক্লিক করুন। তারপরে স্ক্রোল করে নিচে নামলে Deactivate lost sim নামে একটি অপশন দেখতে পাবেন সেটিতে ক্লিক করুন। তাহলে আপনাকে পরবর্তী অপশনে নিয়ে যাবে সেখানে আপনার হারিয়ে যাওয়া সিমের নাম্বারটি বসিয়ে Continue অপশনে ক্লিক করুন। 

মোবাইল ফোন হারিয়ে গেলে করনীয় কি?

এখন পরবর্তী অপশনে আপনাকে জাতীয় পরিচয়পত্রের নম্বর এবং  Date of birth দিতে হবে। এখনো হারিয়ে যাওয়া সিমটির যে জাতীয় পরিচয় পত্র দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করা রয়েছে সেই জাতীয় পরিচয়পত্রের নম্বর এবং Date of birth দিয়ে Continue অপশন ক্লিক করুন। তাহলে আপনার সিমটি ডিএক্টিভ অথবা ব্লক হয়ে যাবে। তার জন্য আপনাকে কাস্টম কেয়ার অথবা কল সেন্টারের কল করতে হলো না। My Gp অ্যাপের মাধ্যমে খুবই কম সময়ের মধ্যে কাজটি করে ফেলতে পারলেন। 

 

সকল আপারেটর এর সিম ডিএক্টিভ করার নিয়ম

My Gp, My robi অথবা My Airtel অ্যাপের মাধ্যমে আপনার হারিয়ে যাওয়া সিমটি ডিএক্টিভ করতে পারবেন। এখন আপনি যদি এই কাজটি ও না করতে পারেন তাহলে সরাসরি হেল্প লাইনে কল করুন। এখন আপনি যদি গ্ৰামীন সিম ব্যবহার করেন তাহলে গ্রামীন সিমের হেল্প লাইনে কল করুন। অর্থাৎ যে সিম ব্যবহার করেন সেই সিমের কাস্টমার কেয়ার কল করুন এবং সাথে সাথে আপনার সিমটি ডিএক্টিভ করে দেন। 

আপনার সিমটি ডিএক্টিভ করে দিলে আপনার মোবাইল ব্যাংকিং/ইন্টারনেট ব্যাংক একাউন্ট গুলো সম্পূর্ণ নিরাপদে থাকবে। কিন্তু যতক্ষণ পর্যন্ত না আপনি আপনার সিমটি ডিএক্টিভ না করবেন। ততক্ষণ পর্যন্ত মোবাইল ব্যাংকিং সহ অন্যান্য ব্যাংক একাউন্ট ও ডকুমেন্ট টোটাল অনিরাপদ থাকবে।

বর্তমান সময়ে অনেকেই মোবাইল চুরি করে মোবাইল ব্যাংকিং, ব্যাংকিং টাকা হাতিয়ে নেওয়ার জন্য। এক প্রকারের চক্র রয়েছে যারা মোবাইল ফোন চুরি করে আপনাকে ফোন দিয়ে বলবে ‘ভাই আমি আপনার ফোনটি কুড়িয়ে পেয়েছি এখন আপনার ফোনটি ফেরত দিতে চাই’ এ ধরনের কথা বলে আপনাদের সাথে একটা ভালো সম্পর্ক তৈরি করবে। যাতে করে আপনি আপনার সিমটি ডিএক্টিভ করতে না পারেন। 

একটা সময় তারা আপনার মোবাইল ব্যাংকিং, ইন্টারনেট ব্যাংকিং/ ব্যাংকের সকল তথ্য হ্যাক করে নেবে। সুতারাং আপনি মোবাইলের আশা না করে আপনার মোবাইল ব্যাংকিং, ইন্টারনেট ব্যাংকিং এবং ব্যাংকের সুরক্ষার জন্য সাথে সাথে আপনার সিম ডিএক্টিভ করে দিন।

 

ফোন লোকেশন ট্রাকিং অন রাখুন

সিম ডিএক্টি করে দেওয়ার পরেও আপনার ফোন সুরক্ষার জন্য আপনাকে আরোও দুটি কাজ করতে হবে। আপনি মোবাইল ব্যাংকিং এবং ব্যাংক সুরক্ষার জন্য সিমটি তো ডিএক্টিভ করে দিলেন। এখন আপনার মোবাইল ফোনে যে পার্সোনাল ডাটা গুলো নিয়ে তারা অপব্যবহার করতে পারে। সেজন্য আপনি যে কাজটি করবেন মোবাইলে থাকা জিমেইলের এক্সেস যদি আপনার কাছে থাকে তাহলে আপনাকে যে কাজটি করতে হবে সেটি হল। 

তাহলে যেকোনো একটি ব্রাউজার সার্চ অপশনে Find My Phone/Find my device লিখে সার্চ করুন। এখন সার্চ রেজাল্টে আসা Find my device ওয়েবসাইট ক্লিক করে Find my device লিংকে প্রবেশ করুন। 

Find my device

তাহলে দেখতে পাবেন আপনার মোবাইলটি এখানে শো করবে। এখন আপনাকে যে কাজটি করতে হবে সেটি হলো। আপনার ফোনে যদি ইন্টারনেট সংযোগ থাকে তাহলে আপনার ফোনের যে লোকেশন রয়েছে সেটি দেখতে পারবেন এবং আপনার ফোনটি কোথায় রয়েছে সেটা ট্যাগ করে ফোনের কাছে চলে যেতে পারবেন। 

আর আপনার মোবাইলটি যদি এখানে কানেক্টেড না হয় অথবা ইন্টারনেট সংযোগ না থাকে আপনি যে কাজটি করবেন এখানে নিচে ‘Erase Device’ অপশনে ক্লিক করুন। তাহলে যখনই আপনার ফোনে ইন্টারনেট সংযোগ আসবে তখনি সাথে সাথে factory reset হয়ে যাবে এবং আপনার মোবাইলে থাকা সকল ডিটেলস গুলো ডিলিট হয়ে যাবে। 

এখন আপনার মোবাইলটি হারিয়ে যাওয়ার পরে সিমটি ডিএক্টিভ করে দিলেন। কিন্তু gmail এর কোন এক্সেস না থাকে তাহলে আপনাকে যে কাজটি করতে হবে। সেটি হলো আপনার নিকটস্থ থানায় গিয়ে একটি জিডি করতে হবে। এখন যে এলাকায় অথবা মহল্লায় আপনার মোবাইলটি হারিয়েছে সেই এলাকায় আপনার মোবাইলে যে IMEI নম্বর রয়েছে সে IMEI নম্বর ব্যবহার করে থানায় একটি জিডি করতে হবে। 

যখন আপনি আপনার ফোনের জন্য জিডি করবেন তখন থেকে পুলিশ আপনার ফোনটি খোঁজা শুরু করবে। আর একটা সময় আপনার ফোনটি যদি একটিভ থাকে তাহলে পুলিশ তাদের টেকনোলজি ব্যবহার করে মোবাইল ফোনটি ট্যাগ করে আপনার মোবাইল ফোনটি আপনার কাছে ফেরত দিতে পারে। 

তবে তার জন্য সময় প্রয়োজন হবে। বর্তমান ডিজিটাল যুগে হাজার হাজার হারানো মোবাইল ফোন পুলিশ হারানো মালিককে ফিরিয়ে দিচ্ছে। তাই সর্বপ্রথম আপনার ফোনটি হারিয়ে গেলে সাথে সাথে সিমটি ডিএক্টিভ করে দিবেন। আর জিমেইলের এক্সেস থাকলে Factory reset করবেন। আর থানায় গিয়ে জিডি করবেন। তাহলে আপনার হারানো ফোনটি খুঁজে পাওয়া সম্ভাবনা থাকবে।

1 thought on “মোবাইল ফোন হারিয়ে গেলে করনীয় কি? দ্রুত জেনে নিন।”

Leave a Comment