সিম কার নামে রেজিস্ট্রেশন করা কিভাবে জানবো 

সিম কার নামে রেজিস্ট্রেশন করা সেই সম্পর্কে বিস্তারিত জানুন আজকের পোস্ট। আপনাদের ভিতরে অনেকেই হয়তো জানেন না যে, আপনার ব্যবহার করা অনেকদিন আগের পুরোনো সিম কার নামে রেজিস্ট্রেশন করা। অথবা সিমটির অরজিনাল মালিককে। এখন আপনার ব্যবহার করা সিমটি যদি হারিয়ে যায় অথবা নষ্ট হয়ে যায়। তাহলে কখনো রিপ্লেস/পরিবর্তন করতে পারবেন না। 

এক্ষেত্রে আমাদের প্রত্যেককে জেনে নেওয়া উচিত, যে আপনার ব্যবহার করা সিম টি কার নামে রেজিস্ট্রেশন করা অথবা  আপনার এনআইডি কার্ড ব্যবহার করে কয়টি সিম রেজিস্ট্রেশন করা হয়েছে। আজকের পোস্টে আমরা আলোচনা করব কিভাবে অনলাইনের মাধ্যমে আপনার হাতে থাকা স্মার্টফোনটি ব্যবহার করে সিম কার নামে রেজিস্ট্রেশন করা অর্থাৎ সিমের প্রকৃত মালিকে তা কিভাবে বের করব।

 

সিম কার নামে রেজিস্ট্রেশন করা কিভাবে জানবো

সিম কার নামে রেজিস্ট্রেশন করা সেটি জানতে পারবেন আপনার হাতে থাকা স্মার্টফোন এবং বাটন ফোনটি ব্যবহার করে। প্রথমে আপনার মোবাইল থেকে ‘ডায়াল প্যাড’ অপশনে যান। তারপর ডায়াল অপশনে *160001# লিখে ডায়াল করুন। (এখানে আপনি যেকোন সিম ব্যবহার করতে পারবেন। এক্ষেত্রে আপনার সিমে অবশ্যই টাকা থাকতে হবে)। এখন ডায়াল করলে আপনার সামনে ‘place enter the last 4 digit of your NID’ লেখাটি চলে আসবে। 

আরোও পড়ুন: মোবাইল ফোন হারিয়ে গেলে করণীয় কি? দ্রুত জেনে নিন। 

এখন আপনি আপনার এন আইডি কার্ডের লাষ্ট চার সংখ্যা বসিয়ে ‘send’ অপশনে ক্লিক করুন। তাহলে গ্রামীনফোন থেকে একটি কনফার্মেশন নোটিফিকেশন/এসএমএস পাবেন। এখন এসএমএসটি ওপেন করলে সেখানে আপনার এনআইডি কার্ড ব্যবহার করে কয়টি সিম রেজিস্ট্রেশন করা রয়েছে সেটি দেখতে পারবেন। তাহলে আপনি খুব সহজে বুঝতে পারবেন আপনার এনআইডি কার্ড ব্যবহার করে কয়টি সিম এই রেজিস্ট্রেশন করা হয়েছে। 

 

নম্বর দিয়ে সিমের মালিক খুঁজে বের করুন 

নম্বর দিয়ে সিমের মালিক খুঁজে বের করুন সম্পর্কে বিস্তারিত জানুন আজকের পোস্ট। আপনাদের ভিতরে অনেকেই জানেন না কিভাবে নম্বর দিয়ে সিমের অরজিনাল মালিক খুঁজে বের করতে হয়। আমাদের কাছে অনেক সময় অনেক বিরক্ত কর ফোন কল অথবা এসএমএস এসে থাকে। কিন্তু আমরা সেই বিরক্তিকারী নাম ইত্যাদি সম্পর্কের না জানার কারণে সেই বিরক্তকারীকে নির্ণয় করতে পারে না। আজকের পোস্টে আমরা আলোচনা করব কিভাবে নম্বর দিয়ে সিমের অরিজিনাল মালিক খুঁজে বের করতে হয়। 

সাধারণত, আপনাদের কাছে অনেক সময় অনেক বিরক্তিকারী বারবার কল করে অথবা এসএমএস পাঠিয়ে আপনাদেরকে বিরক্ত করে থাকে। কিন্তু আপনারা সেই বিরক্তকারী সম্পর্কে কিছুই জানেন না। এখন আপনি যদি সেই বিরক্তিকরীর সম্পর্কে জানতে চান শুধুমাত্র মোবাইল নম্বর দিয়ে তাহলে বিষয়টি একটু কষ্টের কাজ হয়ে যাবে। তার কারণ হলো: বাংলাদেশে এমন কোন সিস্টেম ব্যবস্থা এখনো চালু হয়নি যে সিস্টেমের মাধ্যমে আপনি শুধুমাত্র অন্য কারোর ফোন নম্বর ব্যবহার করে সেই সিমের মালিক সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পারবেন। 

এখন এই কাজটি বাংলাদেশ পুলিশ অথবা সাইবার ক্রাইম ডিপার্টমেন্টের লোকরা শুধুমাত্র নম্বর ব্যবহার করে অরজিনাল মালিক সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য বের করতে পারবেন। কিন্তু আমাদের মতো সাধারণ পাবলিক এই কাজটি করতে পারবেন না। আজকের পোস্টে আমরা কিছু ট্রিক শেয়ার করবো যে ট্রিকগুলো আপনাকে বিরক্তকারী পরিচয় বের করতে সাহায্য করবে। 

সেটি হলো: আপনাকে যদি কোন বিরক্তকরী বারবার কল করে বিরক্ত করে তাহলে আপনি তাকে কয়েকভাবে ট্রেস করতে পারবেন। প্রথমত, আপনি তার নম্বরটি আপনার মোবাইল ফোনে সেভ করুন। তারপরে আপনি তাকে আপনার ইমো থেকে সেই নম্বরটি দিয়ে সার্চ করবেন। তার কারণ হলো: ইমো একটি জনপ্রিয় অ্যাপ। যেকোনো স্মার্ট ফোন ব্যবহারকরী ব্যক্তি ইমো (imo) ব্যবহার করে থাকে। সেজন্য প্রথমেই আপনি ইমো থেকে সার্চ করুন।

এখন আপনি যদি ইমোতে সেই বিরক্তকারী সম্পর্কে জানতে না পারেন তাহলে আপনার হোয়াটসঅ্যাপ থেকে সার্চ করুন। এখন আপনি যদি হোয়াটসঅ্যাপেও সেই ব্যক্তি কে না পেয়ে থাকেন তাহলে যে কাজটি করতে পারেন সেটি হলো। মোবাইল ফোনে একটি অ্যাপ ইন্সটল করে নিতে পারেন। সেই অ্যাপটির নাম হলো ‘ট্রুকলার’। এই অ্যাপটি যদি আপনার ফোনে ইন্সটল করে রাখেন তাহলে যে ব্যক্তি আপনার কাছে কল করবে সেই ব্যক্তির নামটি আপনার সামনে চলে আসবে। তার কারণ হলো: ‘ট্রুকলার এমন একটি যে অ্যাপটি ব্যবহারকারীর প্রত্যেকে ব্যক্তির মোবাইল ফোনে ডাটা সংগ্রহ করে থাকে। 

যখন কোন ব্যক্তি আপনার কাছে কল করবে এবং যখন কোন ‘ট্রুকলার’ ইউজারের কাছে যদি আপনার নম্বরটি সেভ থাকে তাহলে আপনার কাছে তার নম্বরটা চলে আসবে। তাছাড়াও আপনি ‘ট্রুকলার’ মাধ্যমে যেকোনো ব্যক্তির নম্বর দিয়ে সেই ব্যক্তির ছবি খুঁজে বের করতে পারবেন। ‘ট্রুকলার’ থেকে ছবি দেখার জন্য প্রথমে আপনার মোবাইল ফোনে ‘ট্রুকলার’ অ্যাপটি ইনস্টল করুন। এখন অ্যাপটি সম্পূর্ণভাবে ইনস্টল হওয়ার পরে অ্যাপে প্রবেশ করুন এবং সার্চ অপশনে সেই বিরক্তকারী ব্যাক্তির নম্বর বসিয়ে দিন। তাহলে দেখতে হবেন সাথে সাথে সেই ব্যক্তির নাম এবং ছবি চলে আসবে। 

সিম কার নামে রেজিস্ট্রেশন করা কিভাবে জানবো 

তাছাড়াও যদি এখানে কোন নাম অথবা ছবি না আসে। তাহলে, সেখানে দেখতে পাবেন ‘Get picture’ নামে একটি অপশন থাকবে। সেটাতে ক্লিক করুন। তাহলে যদি এই নম্বরে কোন ফেসবুক আইডি থাকে তাহলে সেই ফেসবুক আইডিতে চলে আসবে। 

সতর্কতা: ‘ট্রুকলার’ ব্যবহার করলে কিন্তু প্রাইভেসি অনেক সমস্যা হতে পারে। সেজন্য ‘ট্রুকলার’ ব্যবহার করলে সাবধান থাকবেন। কারন: ‘ট্রুকলার’ শুধুমাত্র আপনাকে সুবিধা দেবেনা তারাও আপনার থেকে কিছু সুবিধা নিবে। যখন আপনি আপনার মোবাইল ফোনে ‘ট্রুকলার’ অ্যাপটি ইনস্টল করবেন তখন তারা আপনার মোবাইল থাকা সকল কন্টাক্ট, ছবি তারা ইসকান করে নিবে এবং তাদের ডাটাবেজে আপনার কন্টাক্ট নাম্বারগুলো চলে যাবে। সুতরাং,‘ট্রুকলার’ করার আগে অবশ্যই বিষয়গুলো মাথায় রাখবেন।

রাইটার (বঙ্গভাষা)

1 thought on “সিম কার নামে রেজিস্ট্রেশন করা কিভাবে জানবো ”

Leave a Comment